Tuesday, February 23, 2016

Few Photos that Describe Agradwip....

সূর্য গেছে অস্তাচলে.....

এক পার ভাঙে.....

আমার ছোট তরি.....

একাকীত্ব....... 

অপুর ট্রেনলাইন দেখা....

আমরা চাষ করি আনন্দে......

' ওই রাঙা মাটির পথ'...

সন্ধে নামার আগে.....

'এক ধারে কাশবন.... '

Tuesday, April 21, 2015

The Greatest Agradwipian


#১ কাকুর ছোট্ট চা'এর দোকান অথচ দোকানে 'টাইমস অফ ইন্ডিয়া'পেপার রাখে;নিজে যে সবটা পড়তে পারে তা নয়।বাচ্চা ছেলেগুলো যখন দোকানের সামনে দিয়ে 'পিড়াইমারি ইস্কুলে'যায় অথবা বিকেলে ব্যাগ কাধে নিয়ে 'ইস্টিশান'পেড়িয়ে 'পিড়াইফোট' পড়তে যায়,কাকুর নিষ্ফল চেষ্টা চলতে থাকে ওদের দিয়ে পেপার পড়ানোর। ওদের-ও ব্যাপারটা শুধু 'বোঝা' নয়।কেও কেও আবার উপভোগ করে; বুক ফুলিয়ে বলে: "জানিস,আজ আমি ইংলিশ পেপার পড়েছি।" ব্যাপারটা কিছুটা ক্লাস টু'এর ছেলের 'ম্যাকবেথ'এর দুটো লাইন পড়ে"জানিস আমি  'ছেক্ছপিয়ার' পড়ি!"বলার মত। তা সত্ত্বেও চা'কাকুর:  "আমাদের শিক্ষাকে আমাদের বাহন করিলাম না, শিক্ষাকে আমরা বহন করিয়াই চলিলাম, ইহারই পরম দুঃখ গোচরে অগোচরে আমাদের মনের মধ্যে জমিয়া উঠিতেছে৷' এই চির সত্যকে মিথ্যা প্রমাণ করার যে ঐকান্তিক প্রচেষ্টা তা অবশ্যয় লক্ষণীয়। #২ দাদুর সেলুনে মাসে অন্তত একবার আমি যায়। ওখানে যে শুধু শরীরের অবাঞ্চিত অংশের ছেদন হয়,তাই নয়।এক অদ্ভুত শান্তি মেলে।দাদুর এই বয়সে মা'এর প্রতি বিনম্র ভক্তি শ্রদ্ধা আমাকে আকৃষ্ট করে।এছাড়াও দাদুর কিছু মহৎ গুণ আছে যা আমাকে মুগ্ধ করে।দাদু অত্যন্ত ভাবুক। তিনি ভাবেন স্বাধীনতার ঊনসত্তর বছর কেটে যাওয়ার পরেও আমরা কি স্বাধীনতা পেয়েছি? দিনে অত্যন্ত পরিশ্রম করার পরেও রাত্রে সমকালিক ঘটনাকে কেন্দ্র করে কবিতা রচনা করেন।উনার কবিতার কোন মুল্যই হয়তো আমাদের কাছে নেই।তবে উনার ভাবনা আমাদের মত তথাকথিত শিক্ষিত সমাজের কাছে অনুপ্রেরণা। #৩ ঘটনা দুটো উল্লেখ করার দুটো কারণ আছে।কারণ ব্যাসিকালি "কোন স্বার্থ ছারা আমরা এক পা'ও এগোই না।'পুরুষতান্ত্রিক সমাজের যে কোন অত্যাচারের জন্য আমরা পুরুষেরাই দায়ী। অথচ সমাজের 'So Called 'পুরুষের তুলনায় এরকম "Accha Souchnewala Insaan" ও নেহাত কম নয়,যারা দিনে ডাল ভাত আলুভাতে খাই,নেহাতি কোন "ছোট কাজ" করে,অথচ সারাদিনের  'হাঁড়ভাঙা' খাটুনির পর সন্ধ্যায় ব্যর্থতার চাদর সড়িয়ে নতুন করে ভাবতে শুরু করে,নিজেদের মধ্যেই নতুন একটা 'Utopia'এর জন্ম দেয়। পৃথিবীতে এরম কয়েকটা "সাধারণ মানুষের" অত্যাবশ্যকীয়তা  অত্যন্ত প্রয়োজন, যারা সমাজকে নিয়ে একটু ভাববে।তাহলে বোধহয় মেয়েদের "সাদা প্যাড নিয়ে আন্দোলন " 'নিরাপত্তা হিনতা' বা "বর্বরতার শিকার হওয়ার"প্রতিবাদে কোন আন্দোলন গড়ে তুলতে হবেনা।কারণ কবি কাজী নজরুল ইসলামের লেখা "কুলিমজুর"এর "বাবুসাব"রা 'কর্পোরেট World "নিয়ে ব্যস্ত,তাদের ঘুম দেড়িতে ভাঙে। আমি আশাবাদী, তাই আশা রাখছি পৃথিবীতে খুব শীঘ্রয় কয়েকটা 'চা কাকু' আর 'সেলুন দাদুর' জন্ম হবে।

Wednesday, October 1, 2014

শারদীয়া ২০১৪

সকলকে শুভ শারদীয়ার আন্তরিক
প্রীতি শুভেচ্ছা ও ভালোবাসা ।
যে যেখানেই আছো, যে অবস্থাতেই আছো,
সবকিছু ভুলে খুব খুব আনন্দ কর ।
সৌজন্যে : অগ্রদ্বীপ

Tuesday, September 30, 2014

শিল্পের আদর্শ নিদের্শন

আমাদের অগ্রদ্বীপের এমন কিছু প্রতিভা আছে যা আমাদের সচরাচর চোখে পরেনা। আমার বন্ধু সুজয় সুত্রধরের বানানো এই কাঠের  প্রতিমাটি তার প্রতিভার একটি আদর্শ নিদর্শন।

Monday, March 3, 2014

ওঁ গুরুর্ব্রহ্মা গুরুর্বিষ্ণুঃ গুরুর্দেবোঃ মহেশ্বরঃ। গুরুরেব পরম ব্রহ্ম তস্মৈ শ্রীগুরুবে নমঃ ॥

শ্রীপ্রঞ্জা দাস বাবাজির আকস্মিক তিরোধানে সারা অগ্রদ্বীপে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।আশ্রমের সাধকদের অশ্রুধারা প্রমাণ করে বাবার অস্তিত্ব তাদের হৃদয়ের কতোটা জায়গা জুরে ছিল।স্কুল নির্মাণ, রাস্তা সংস্করণ থেকে শুরু ছাত্রছাত্রীদের পুস্তক সাইকেল বিতরণ বস্ত্র বিতরণ প্রভৃতি যে কর্মজঞ্জের সূচনা তিনি করেছিলেন এক কথায় তা অনস্বীকার্য। তার ঞ্জানের পরিধি সম্পর্কে আমরা সকলেই অবগত। শুধুমাত্র" ঞ্জান "শব্দটির তিনি যা ব্যাখ্যা করেছিলেন তা আমাকে অবাক করেছিল,তাতে আমাকে বিস্মিত করে তুলেছিল। অগ্রদ্বীপের শিশু থেকে শুরু করে বৃদ্ধ  পর্যন্ত সকলেই তার মৃত্যুতে শোকাহত। স্থানীয় বাজার কমিটি তার আত্মার শান্তির উদ্দেশ্যে বুধবার সমস্ত কার্যকলাপ বন্ধ রেখেছে এবং সান্ধকালিন হরিনাম সংকীর্তনের আয়োজন করেছে।